মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২১, ০৩:৪২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
শোক সংবাদ, শোক সংবাদ সকল মান-অভিমান ভূলে নৌকাকে বিজয়ী করতে হবে – জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি-মিলন বাসায় ফিরেছেন প্রিয় নেতা ভাসানচর থানা উদ্বোধন করলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কুষ্টিয়া নাগরিক কমিটি গঠন: সভাপতি ডাঃ মুসতানজিদ। সাধা: সম্পাদক ড. সেলিম তোহা। যুগ্ম সাধা: সম্পাদক সামসুল ওয়াসে সন্ত্রাসী মোস্তাকের টার্গেট নিরীহ মানুষ ও ব্যবসায়ীদের। প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা। ঝিকরগাছার গদখালি ফুলের রাজধানীতে করোনাকালীন সময়ে হচ্ছে না ফুল বিক্রি : চলতি বছরে থাকছে না কোন টার্গেট নলছিটিতে পছন্দের ছেলের সঙ্গে বিয়ে না দেওয়ায় স্কুল ছাত্রীর ওরনায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা কুষ্টিয়া কেএনবি এগ্রো দ্বিতীয় বিভাগ ক্রিকেট লীগের উদ্বোধন ভেড়ামারা পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়র কে নাগরিক সংবর্ধনা।
ঘোষণা :
নিউজ আর এস এ আপনাকে স্বাগতম  

কুষ্টিয়াতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনাকে বৃদ্ধা আঙ্গুলী দেখিয়ে সিন্ডিকেট মাধ্যমে কোটি কোটি টাকা হাতিয়ে নিচ্ছে পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলী পিযুষ কৃষ্ণ কুন্ডু

Reporter Name / ৪০ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ১৭ ডিসেম্বর, ২০২০, ৫:০৫ অপরাহ্ন

নিজস্ব প্রতিনিধি।
প্রধানমন্ত্রীর সকল নির্দেশনাকে বৃদ্ধা আঙ্গুল দেখিয়ে কোটি কোটি টাকার ঘুষ বানিজ্য করে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে সিন্ডিকেট করে ন্যাচারাল সালেহ আহমেদ ও ন্যাচারাল লিয়াকত আলী প্রতিষ্ঠানের একাধিক কাজ থাকা সত্বেও কুষ্টিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী পিযুষ কৃষ্ণ কুন্ডু তাদের সাথে আতাত করে পুনরায় তাদেরকে শত কোটির টাকার কাজ বুঝিয়ে দিচ্ছেন।একই প্রতিষ্ঠানের একাধিক কাজ থাকায় কাজের মান খারাপ ও কাজ শেষ হতে বিলম্ব হচ্ছে। এর কারনে নামে মাত্র কিছু ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান অঢেল সম্পদের মালিক হচ্ছে সাথে কুষ্টিয়া পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলী নামে বেনামে গড়ে তুলেছেন কোটি কোটি টাকার সম্পত্তি। অন্যদিকে বাকি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান গুলো অথই সমুদ্রের মাঝে তলিয়ে যাচ্ছে।
উল্লেখ্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, চলমান কাজ শেষ করলে পরের কাজ পাবে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। গত (২৪ নভেম্বর) মঙ্গলবার জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ নির্দেশনা দেন। সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের সামনে প্রধানমন্ত্রীর এসব বক্তব্য তুলে ধরেছিলেন পরিকল্পনা বিভাগের জ্যেষ্ঠ সদস্য মো: আসাদুল ইসলাম। এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা তুলে ধরে সচিব বলেছিলেন , আমাদের অনেক প্রকল্প, নির্মাণে দেরি হয়ে যায়। এই দেরির একটা কারণ হলো একই ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান অনেকগুলো কাজ পেয়ে থাকে। মুষ্টিমেয় প্রতিষ্ঠান কাজ করে। এসব প্রতিষ্ঠানের মধ্যে কে কতগুলো কাজ পেয়েছে, কাজ সময়মতো শেষ করেছে কি না, কোন সময় শেষ করেছে, এসবের একটি তালিকা সব মন্ত্রণালয় তৈরি করবে এবং তা প্রকাশ করতে হবে বলে জানিয়েছিলেন সেই সভায়। (চলমান) কাজ শেষ করলে পরের কাজ পাবে। এর দুটি উদ্দেশ্য। একটি হলো নতুন নতুন প্রতিষ্ঠান গড়ে উঠবে নির্মাণকাজের জন্য, মুষ্টিমেয় প্রতিষ্ঠানের মধ্যে সীমিত থাকব না। দ্বিতীয়ত সময়মতো আমাদের নির্মাণকাজ শেষ হবে। সুত্র ১! প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের স্মারক নং – ০৩০৭৩০৪৬২১০০০০১২০১৮২৫৯ তারিখ ৩রা,অক্টোবর ২০১৯ খৃস্টাব্দে।
সুত্রে জানা যায়, প্রথমত: মোঃ লিয়াকত আলীর কাজের মেমো নং ২/১৪৬৬, তারিখ: ২৩-০১-২০২০, টাকার পরিমান: ১৯,৮০,০৩,১০১.৬৪৩ কোটি টাকার। লিয়াকত আলীর কাজের মেমো নং ২/১৪৬৫, তারিখ: ২৩-০১-২০২০, বাজেট: ১৯,৮০,৩২,৯৩৭.১৫৮। লিয়াকত আলীর কাজের মেমো নং ২/৯২, তারিখ: ১৪-০৭-২০২০, বাজেট: ২৫,২৬,৫১,২৪৭.৩৩৫। লিয়াকত আলীর কাজের মেমো নং ২/৯৩, তারিখ: ১৪-০৭-২০২০,বাজেট ২৫,২৬,৪৭,৭৮৯.১৩০ টাকা। দ্বিতীয়ত: মোঃ নাসির উদ্দিন মোল্লা কাজের মেমো নং ২/১৪৭৭, তারিখ: ৩০-০১-২০২০, বাজেট দেয় ১২,৬৩,২৪,১৮১.৪৪৯। নাসির উদ্দিন মোল্লা, কাজের মেমো নং ২/১৪৭৮, তারিখ: ৩০-০১-২০২০, বাজেট ২৫,৯৪,৫২,৩৪৪.০৬১ টাকার। নাসির উদ্দিন মোল্লায়, বাজেট, ৩কোটি ৭৬ লক্ষ টাকার। তৃতীয়ত মোঃ সালেহ আহমদ, কাজের মেমো নং ২/৯৪, তারিখ: ১৪-০৭-২০২০, বাজেট, ২৫,৯৪,৪৫,৯১৬.৫৯৪ টাকার। সালেহ আহমদ, বাজেট, ২৬ কোটি টাকা আনুমানিক। চতুর্থ: ন্যাশন টেক, কাজের মেমো নং ২/১৪৭৮, তারিখ: ১৩-০১-২০২০ বাজেট ২৫,৯৪,৫২,৩৪৪.০৬১। ন্যাশন টেক, কাজের মেমো নং ২/১৪৬৫, তারিখ: ২৩-০১-২০২০, বাজেট ১৯ কোটি ৮০ লক্ষ ৩২০০০হাজার টাকার। ন্যাশন টেক, কাজের মেমো নং ২/১৪৬৬, তারিখ: ৩০-০১-২০২০, বাজেট, ১৯ কোটি ৮০ লক্ষ টাকার। পঞ্চম: তাজওয়ারের কাজের মেমো নং ২/৯২,দেয় তারিখ: ১৪-০৭-২০২০, বাজেট ২৫,২৬,৫১,২৪৭.৩৩৫ টাকা। তাজওয়ারের কাজের মেমো নং ২/৯৩, তারিখ: ১৪-০৭-২০২০, বাজেট, ২৫,২৬,৪৭,৭৮৯.১৩০। এই কাজের ঠিকারদারী প্রতিষ্ঠান গুলোর চলমান কাজের অগ্রগতি ১০-১৫% হয়েছে বলে জানা যায়। পূণরায় তারা নতুন কাজ কিভাবে পাই এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন সরকারীভাবে কোন নির্দেশনা পাননি বলে জানান।
২. সিপিটিইউ,র স্মারক নং ২১,০০,০০০,৩৬৪,২২,০২০,১৯ ২০২,তারিখ ১০ ই অক্টোবর ২০১৯ খৃস্টাব্দে। অথচ প্রধানমন্ত্রীর এই সকল নির্দেশনা সম্বন্ধে গতকাল মঙ্গলবার সাংবাদিকরা পিযুষ কৃষ্ণ কুন্ডুর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন এরকম কোন নির্দেশনা এখনও আমরা পাইনি।ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের মধ্যে সিন্ডিকেট ও তার দুর্নীতি নিয়ে সাংবাদিকরা তাকে সরাসরি প্রশ্ন করলে তিনি কোন সঠিক উত্তর দিতে পারেনি। নাম বলতে অনিচ্ছুক কয়েকটি ঠিকাদার অভিযোগ করে সাংবাদিকদের কাছে বলেন কুষ্টিয়া পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী পীযুষ কৃষ্ণ কুন্ডুর সাথে কয়েকটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের আতাত থাকার কারনে তারা তাকে কোটি কোটি টাকার ঘুষ বানিজ্য করে কাজ নিয়ে নেয়।আমরা দেশ ও দশের স্বার্থে তার সাথে আতাত না করার কারনে আমরা কাজ পায়নি। এতে দিন দিন আমরা,মারাত্মক ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে পড়ছি। যদি এখনও পাউবোর নির্বাহী প্রকৌশলীর এই ঘুষ বানিজ্য ঠেকানো না যায় তাহলে দেশ তথা আমরা বাকি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান গুলো অথই সমুদ্রের মাঝে তলিয়ে যাব।নির্বাহী প্রকৌশলী পিযুষ কৃষ্ণ কুন্ডুর কোটি কোটি টাকার ঘুষ বানিজ্য বন্ধ করে দেশের কোটি কোটি টাকার সম্পদ রক্ষা করতে সাধারন ভুক্তভোগীরা পানি উন্নয়ন বোর্ডের সংশ্লিষ্ট উর্ধতন কর্মকর্তাদের এর সঠিক তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে দৃষ্টি আকর্ষণ করেছেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

কুষ্টিয়ায় আরো এক পান্না মাষ্টারের সন্ধান..! লম্পট রাজুর বিরুদ্ধে একাধিক ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ প্রতিবাদ করায় ছাত্রীকে হুমকি, নিরাপত্তাহীনতা ও বিচার চেয়ে থানায় এজাহার দায়ের সোহেল রানা কুষ্টিয়া : কুষ্টিয়ায় এক লম্পটের বিরুদ্ধে ছাত্রীকে শ্লীলতাহানি ও কু-প্রস্তাবের অভিযোগ উঠেছে । ভুক্তভোগী ওই ছাত্রীকে বিভিন্ন মাধ্যমে হুমকি ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করেছে ওই লম্পট। জানা যায়, কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার গোয়ালগ্রাম মধুগাড়ী এলাকার আরজ উল্লাহ’র ছেলে রাজু আহাম্মেদ যার বর্তমান ঠিকানা কুষ্টিয়া শহরের কাটাইখানা মোড়ের একটি বেসরকারি নার্সিং ইনস্টিটিউটের কোর্স সমন্বয়কারী। অত্র ইনস্টিটিউটের ২য় বর্ষের এক ছাত্রীর সাথে পরিচয় হয় তার। পরিচয়ের পর একপর্যায়ে ওই ছাত্রীকে বিভিন্ন ভাবে কু-প্রস্তাব দেয় লম্পট রাজু। কিন্তু ওই ছাত্রী তার কু-প্রস্তাবে সাড়া না দেওয়ায় রাজু ওই ছাত্রীর ওড়না ধরে টানাটানি, শরীরে বিভিন্ন স্থানে হাত দেওয়া সহ বিভিন্ন ভাবে দীর্ঘদিন ধরে উত্যক্ত করে আসছিল রাজু। বিষয়টি কাউকে জানালে ওই ছাত্রীকে পরীক্ষায় ফেল করিয়ে দেওয়ার হুমকি দেয় ওই লম্পট। ভীত ওই ছাত্রী জানায়, লম্পট রাজু জোরপূর্বক ভাবে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এব্যাপারে ওই ছাত্রী নিরাপত্তাহীনতা ও বিচারের দাবী করে কুষ্টিয়া মডেল থানায় একটি এজাহার দায়ের করেছেন।একাধিক সূত্র জানায়, এরকম আরো কয়েকজন শিক্ষার্থীদের ভয়ভীতি দিয়ে অনৈতিক সম্পর্ক গড়ার চেষ্টা করে লম্পট রাজু। তার ফাঁদে পড়ে অনেকেই সর্বঃস্ব হারিয়েছে বলে সূত্র জানিয়েছে। ওই ছাত্রীর এজাহারের ভিত্তিতে কুষ্টিয়া মডেল থানার ওসি গোলাম মোস্তফার নির্দেশে ওসি তদন্ত অভিযোগকারী ওই ছাত্রীসহ ভুক্তভোগীদের জিজ্ঞাসাবাদ করে। পরবর্তীতে কুষ্টিয়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ গোলাম মোস্তফা বাদী ও ভুক্তভোগীদের জিজ্ঞাসাবাদ করে সত্যতা পায়। তিনি জানান, নারী নির্যাতনকারী অপরাধী যেই হোক তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অতিদ্রুত অভিযুক্তের বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এক ক্লিকে বিভাগের খবর