মঙ্গলবার, ২৬ জানুয়ারী ২০২১, ০৩:০৮ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
শোক সংবাদ, শোক সংবাদ সকল মান-অভিমান ভূলে নৌকাকে বিজয়ী করতে হবে – জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি-মিলন বাসায় ফিরেছেন প্রিয় নেতা ভাসানচর থানা উদ্বোধন করলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী কুষ্টিয়া নাগরিক কমিটি গঠন: সভাপতি ডাঃ মুসতানজিদ। সাধা: সম্পাদক ড. সেলিম তোহা। যুগ্ম সাধা: সম্পাদক সামসুল ওয়াসে সন্ত্রাসী মোস্তাকের টার্গেট নিরীহ মানুষ ও ব্যবসায়ীদের। প্রশাসনের হস্তক্ষেপ কামনা। ঝিকরগাছার গদখালি ফুলের রাজধানীতে করোনাকালীন সময়ে হচ্ছে না ফুল বিক্রি : চলতি বছরে থাকছে না কোন টার্গেট নলছিটিতে পছন্দের ছেলের সঙ্গে বিয়ে না দেওয়ায় স্কুল ছাত্রীর ওরনায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা কুষ্টিয়া কেএনবি এগ্রো দ্বিতীয় বিভাগ ক্রিকেট লীগের উদ্বোধন ভেড়ামারা পৌরসভার নবনির্বাচিত মেয়র কে নাগরিক সংবর্ধনা।
ঘোষণা :
নিউজ আর এস এ আপনাকে স্বাগতম  

কুষ্টিয়ায় সফল অভিযানে ডিবি পেল পুরস্কার

Reporter Name / ৩৪ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : বুধবার, ২ ডিসেম্বর, ২০২০, ১:৩৭ অপরাহ্ন

 

, কুষ্টিয়া প্রতিনিধি :
কুষ্টিয়ায় সফল অভিযান জেলা পুলিশ সুপার এস এম তানভীর আরাফাত এর নিকট থেকে এক লক্ষ টাকা পুরস্কার গ্রহণ করলেন ডিবি পুলিশের সদস্যবৃন্দরা। আজ সকালে জেলা পুলিশ সুপার এর কার্যালয়ে ডিবি পুলিশ সদস্যদের হাতে একলক্ষ টাকা তুলে দেন তিনি।
গরু ব্যবসায়ী, সাধারণ ব্যবসায়ী, ভদ্র মহিলাদের টার্গেট করে ডিবি পুলিশ-র‌্যাব ও বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার পরিচয় দিয়ে অভিনব কায়দায় প্রতারণা পূর্বক ছিনতাই করে আসছিল সংঘবদ্ধ চক্র। এরই ধারাবাহিকতায় গত ১৪/১১/২০২০ তারিখ বেলা অনুমান ১৪:৫১ ঘটিকার সময় কুষ্টিয়া মডেল থানাধীন কুষ্টিয়া ফিলিং স্টেশনের পশ্চিম দিকে চৌড়হাস জামে মসজিদের গলির পার্শ্বে ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে প্রতারণা পূর্বক জনৈক মোঃ মারুফ হোসেন(২৫), পিতা-আব্দুস সামাদ, সাং-কেষ্টপুর, থানা-মিরপুর, জেলা-কুষ্টিয়ার নিকট হতে গরু বিক্রির ৪৫,০০০/- হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। এসংক্রান্তে কুষ্টিয়া মডেল থানার মামলা নং-৩৪, তারিখ-১৫/১১/২০২০ খ্রিঃ, ধারা-১৭০/৪০৬/৪২০ পেনাল কোড রুজু হয়।
জনৈক মোঃ সিরাজুল ইসলাম, পিতা-মোঃ বাবু শেখ, সাং-হাউলিকেউটিল, থানা-গোয়ালন্দ, জেলা-রাজবাড়ী উভয় পিতা ও পুত্র কুষ্টিয়া জেলার বালিয়াপাড়া গরুর হাটে গরু ক্রয়ের উদ্দেশ্যে কুষ্টিয়া বাস টার্মিনালে বাস হতে নেমে পায়ে হেটে চৌড়হাস মোড়ে যাওয়ার সময় ১৪/১১/২০২০ তারিখ সকাল ১০:০০ ঘটিকার সময় কুষ্টিয়া মডেল থানাধীন চৌড়হাস কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের সামনের রাস্তায় ব্রিজের উপর পৌঁছলে অজ্ঞাতনামা ০৩ জন ব্যক্তি নিজেদেরকে ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে তাদের নিকট হতে ১,৩২,০০০/- টাকা প্রতারণামূলক ভাবে ছিনিয়ে নেয়। এসংক্রান্তে কুষ্টিয়া মডেল থানার মামলা নং-৩৫, তারিখ-১৫/১১/২০২০ খ্রিঃ, ধারা-১৭০/৪০৬/৪২০ পেনাল কোড রুজু হয়।
জনৈক মিসেস বিলকিস(৫০), স্বামী-মোঃ আবু বক্কর শেখ, সাং-মঙ্গলবাড়িয়া, থানা ও জেলা-কুষ্টিয়া (বর্তমানে সাং-জুগিয়া, কদমতলা, লোটন সাহেবের বাড়ির ভাড়াটিয়া, থানা ও জেলা-কুষ্টিয়া) ২৪/১১/২০২০ তারিখ তার অসুস্থ্য চাচাতো ভাই মোঃ মাসুদুর রহমান কে দেখার জন্য নিজ বাসা হতে রওনা হয়ে দুপুর ১৪:১৫ ঘটিকার সময় ছয় রাস্তার মোড়, রূপালী ব্যাংকের গলির ভিতর পৌঁছে পায়ে হেঁটে চাচাতো ভাইয়ের বাসায় যাওয়ার সময় অজ্ঞাতনামা ০২ জন লোক মিসেস বিলকিস এর নিকট গিয়ে নিজেদেরকে র‌্যাব-ডিবি পুলিশের পরিচয় দিয়ে বলে যে, “গলির মধ্যে সামনের দিকে টাকা-পয়সা সোনা-দানা ধরা পড়েছে আপনি সামনে যেতে পারবেন না। আপনি দাঁড়ান আপনার কাছে কি কি আছে আপনি আমাদের কাছে জমা দেন। আমাদের অফিস কাছে আমি একটা কার্ড দিচ্ছি” বলে জানায়। তখন বিলকিসের সামনে তাদের দলের অপর একজন ব্যক্তি গিয়ে একই পরিচয় দেয়। অতঃপর ০৩ জন অজ্ঞাতানামা ব্যক্তি তাকে ভয়ভীতি দেখিয়ে তার হাতে থাকা চার আনা ওজনের স্বর্ণের আংটি (যার মূল্য অনুমান ২০০০০/-) টাকা, আট আনা ওজনের হাতের একজোড়া স্বর্ণের চুড়ি (যার মূল্য অনুমান ৪০০০০/-) টাকা এবং নগদ ২২০০/-(দুই হাজার দুইশত) টাকা দিতে বাধ্য করেন। মিসেস বিলকিস ভয় পেয়ে ওখানে দাঁড়িয়ে থাকেন। পরবর্তীতে তিনি দেখতে পান যে, রাস্তা পার হয়ে দাঁড়ানো একটি কালো প্রাইভেট গাড়ীতে উঠে অজ্ঞাতনামা ৩ জন ছিনতাইকারী দ্রুত চলে যাচ্ছে। এ সংক্রান্তে কুষ্টিয়া মডেল থানার মামলা নং-৫৫, তাং-২৪/১১/২০২০ খ্রিঃ, ধারা-৩৯২ পেনাল কোড রুজু হয়েছে।
উপরোক্ত ০৩ টি ঘটনার পর জনাব এস এম তানভীর আরাফাত, পিপিএম(বার), পুলিশ সুপার, কুষ্টিয়ার দিক-নির্দেশনায় জনাব মোঃ ফরহাদ হোসেন খাঁন, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, জেলা বিশেষ শাখা, কুষ্টিয়ার নেতৃত্বে কুষ্টিয়া জেলা গোয়েন্দা শাখা (ডিবি) সংঘবদ্ধ অপরাধী চক্র সনাক্ত ও গ্রেফতারের জন্য অভিযান পরিচালনা করে ২৯/১১/২০২০ তারিখ রাত্র অনুমান ২১:৩০ ঘটিকার সময় কুষ্টিয়া জেলার ভেড়ামারা থানাধীন বারমাইল এলাকা হতে অনুরূপ ঘটনা ঘটানোর প্রস্তুতিকালে অপরাধী চক্রের মূলহোতা ১। মোঃ আরিফুল ইসলাম (৪২), পিতা-মৃত জমির খাঁন (অবসরপ্রাপ্ত নায়েব সুবেদার), মাতা-রোকেয়া বেগম, সাং-৫৪/১০, সাভার ব্যাংক কলোনী, ওয়ার্ড নং-৫, থানা-সাভার, জেলা-ঢাকা, ২। মোঃ খোকন মিয়া @ জামাল মিয়া(৫৫), পিতা-তোফাজেল হক@ নুরুল হক, মাতা-আয়েশা খাতুন, সাং-কালামিয়ার বাড়ী, ইউনিয়ন-কাদিরপুর, (ভোটার এরিয়া-গয়েছপুর), থানা-বেগমগঞ্জ, জেলা-নোয়াখালী, এপি সাং-২৫২/২৫৩ জুরাইন, থানা-কদমতলী, জেলা-ডিএমপি, ঢাকা, ৩। মোঃ হারুন @ বাবু মিয়া(৪২), পিতা-আব্দুর রব @ মাজেদ মিয়া, মাতা- ইয়ারুন নেসা, সাং মোল্লা কান্দি,থানা-মুন্সিগঞ্জ সদর, জেলা-মুন্সিগঞ্জ,(বাড়ী নদী গর্ভে বিলিন), এপি সাং-কোলারহাট, থানা-রাজবাড়ী সদর, জেলা-রাজবাড়ী’দেরকে একটি ব্ল কালো রংয়ের প্রাইভেটকার ঢাকা মেট্রো-গ-১৪-৮৫৯৪, সহ আটক করেন। তাদের নিকট হতে (১) বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর লোগো যুক্ত টি-শার্ট ০১টি, (২) স্পেশাল ফোর্স কমান্ড লোগো যুক্ত টি-শার্ট ০১ টি, (৩) নিরাপত্তা বাহিনীর ব্যবহৃত বুট ০২ জোড়া, (৪) র‌্যাব এর ব্যবহারিত ক্যাপের ন্যায় ০১টি কালো ক্যাপ, (৫) ওয়াকিটকি সেট ০১টি, (৬) হ্যান্ডকাপ (চাবি সহ) ০১ জোড়া, (৭) দেশীয় তৈরী তরবারি ০১টি, (৮) ডেগার ০১টি, (৯) টিপ চাকু ০১টি, (১০) বিদেশী পিস্তল ০২টি, (১১) ম্যাগজিন-০২ টি, (১২) গুলি ০৪ রাউন্ড, (১৩) ফেন্সিডিল ১১ বোতল, (১৪) স্বর্ণ সদৃশ্য বালা ০২টি, (১৫) স্বর্ণ সদৃশ্য আঁকাবাঁকা ব্রেসলেট ০২টি, (১৬) স্বর্ণ সদৃশ্য চুড়ির পাত ০২টি, (১৭) সোনালী রংয়ের ঘড়ি ০১টি, (১৮) কালো রংয়ের ওয়ালেট ০২ টি, (১৯) মোবাইল হ্যান্ডসেট ০৪ টি, (২০) নগদ ৯২,১৩৩/- টাকা উদ্ধার করেন। আটককৃত ছিনতাইকারীদের জিজ্ঞাসাবাদে জানায় যে, তারা প্রাইভেট কার-এ বিভিন্ন বাহিনীর পোষাক, বুট, ওয়াকিটকি সেট, অস্ত্র-গুলি ব্যবহার করে গরু ব্যবসায়ী, সাধারণ ব্যবসায়ী, ভদ্র মহিলাদের টার্গেট করে ডিবি পুলিশ, র‌্যাব, গোয়েন্দা সংস্থাসহ অন্যান্য বাহিনীর পরিচয়ে প্রতারণার মাধ্যমে কুষ্টিয়া, যশোর, ঝিনাইদহ, পাবনা, রাজশাহী, বগুড়া, টাংগাইল, ময়মনসিংহ, বরিশাল, ঢাকাসহ বিভিন্ন জেলায় দীর্ঘ দিন ধরে ছিনতাই/ডাকাতি করে আসছিল। আসামীদের বিরুদ্ধে ১। ভেড়ামারা থানায় মামলা নং-২০, তাং-৩০/১১/২০২০ খ্রিঃ ধারা-ঞযব চবহধষ ঈড়ফব, ১৮৬০ এ


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

কুষ্টিয়ায় আরো এক পান্না মাষ্টারের সন্ধান..! লম্পট রাজুর বিরুদ্ধে একাধিক ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ প্রতিবাদ করায় ছাত্রীকে হুমকি, নিরাপত্তাহীনতা ও বিচার চেয়ে থানায় এজাহার দায়ের সোহেল রানা কুষ্টিয়া : কুষ্টিয়ায় এক লম্পটের বিরুদ্ধে ছাত্রীকে শ্লীলতাহানি ও কু-প্রস্তাবের অভিযোগ উঠেছে । ভুক্তভোগী ওই ছাত্রীকে বিভিন্ন মাধ্যমে হুমকি ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করেছে ওই লম্পট। জানা যায়, কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার গোয়ালগ্রাম মধুগাড়ী এলাকার আরজ উল্লাহ’র ছেলে রাজু আহাম্মেদ যার বর্তমান ঠিকানা কুষ্টিয়া শহরের কাটাইখানা মোড়ের একটি বেসরকারি নার্সিং ইনস্টিটিউটের কোর্স সমন্বয়কারী। অত্র ইনস্টিটিউটের ২য় বর্ষের এক ছাত্রীর সাথে পরিচয় হয় তার। পরিচয়ের পর একপর্যায়ে ওই ছাত্রীকে বিভিন্ন ভাবে কু-প্রস্তাব দেয় লম্পট রাজু। কিন্তু ওই ছাত্রী তার কু-প্রস্তাবে সাড়া না দেওয়ায় রাজু ওই ছাত্রীর ওড়না ধরে টানাটানি, শরীরে বিভিন্ন স্থানে হাত দেওয়া সহ বিভিন্ন ভাবে দীর্ঘদিন ধরে উত্যক্ত করে আসছিল রাজু। বিষয়টি কাউকে জানালে ওই ছাত্রীকে পরীক্ষায় ফেল করিয়ে দেওয়ার হুমকি দেয় ওই লম্পট। ভীত ওই ছাত্রী জানায়, লম্পট রাজু জোরপূর্বক ভাবে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এব্যাপারে ওই ছাত্রী নিরাপত্তাহীনতা ও বিচারের দাবী করে কুষ্টিয়া মডেল থানায় একটি এজাহার দায়ের করেছেন।একাধিক সূত্র জানায়, এরকম আরো কয়েকজন শিক্ষার্থীদের ভয়ভীতি দিয়ে অনৈতিক সম্পর্ক গড়ার চেষ্টা করে লম্পট রাজু। তার ফাঁদে পড়ে অনেকেই সর্বঃস্ব হারিয়েছে বলে সূত্র জানিয়েছে। ওই ছাত্রীর এজাহারের ভিত্তিতে কুষ্টিয়া মডেল থানার ওসি গোলাম মোস্তফার নির্দেশে ওসি তদন্ত অভিযোগকারী ওই ছাত্রীসহ ভুক্তভোগীদের জিজ্ঞাসাবাদ করে। পরবর্তীতে কুষ্টিয়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ গোলাম মোস্তফা বাদী ও ভুক্তভোগীদের জিজ্ঞাসাবাদ করে সত্যতা পায়। তিনি জানান, নারী নির্যাতনকারী অপরাধী যেই হোক তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অতিদ্রুত অভিযুক্তের বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এক ক্লিকে বিভাগের খবর