শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ১২:২৮ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
হাফেজা হলেন সৈয়দা রাশিদা বেগম এমপির নাতনি আদিবা আয়েশা সোহা। নিজের অপকর্ম ঢাকতে নিজ প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ৬শিক্ষক-শিক্ষিকার বিরুদ্ধে জঙ্গীবাদ ও ধর্ষণচেষ্টার মিথ্যা অভিযোগ আদিবা আয়েশা বাংলাদেশ যুব ছায়া সংসদের সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। সাংবাদিকের মোঃ শামীম আসরাফের উপর সন্ত্রাসী হামলা কুষ্টিয়া জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে ২০ টাকায় সরকারি চাকুরী পেলেন ওরা ১৬ জন ইঞ্জিনিয়ার্স ফাউন্ডেশন দৌলতপুর (ইএফডি) এর পূনাঙ্গ উপ-কমিটি প্রকাশ করা হয়েছে। ড্রীম ইন্টেরিয়র ডিজাইনের নাম পরিবর্তন করে, চাঁদ ইন্টেরিয়র ডেকোরেশন নামকরণ করা হয়েছে। গ্রেনেড হামলাঃ কুষ্টিয়ায় ছাত্রলীগ নেতা চ্যালেঞ্জ এর উদ্যোগে দোয়া মাহফিল ওহিদুল ইসলাম বাদল এর সহযোগীতায় এবং শাইখ আল জাহান শুভ্র এর তত্ত্বাবধানে মিলাদ মাহফিল আয়োজন। দৌলতপুরে অধ্যক্ষ ও সাংবাদিকের নামে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবীতে মানববন্ধন
ঘোষণা :
নিউজ আর এস এ আপনাকে স্বাগতম  

সংসদ সদস্য বাদশাহ্ কে নিয়ে অধ্যক্ষ ছাদিকুজ্জামান খাঁন সুমন এর হৃদয়ের অনুভূতি

Reporter Name / ৮৭ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : শুক্রবার, ২৩ অক্টোবর ২০২০, ১২:২৮ পূর্বাহ্ন

 

কুষ্টিয়া-১ দৌলতপুর আসনের বিজয়ী সংসদ সদস্য, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ দৌলতপুর উপজেলা শাখার সিনিয়র সহ-সভাপতি সাবেক তুখোড় ছাত্রনেতা এ্যাডঃ সরওয়ার জাহান বাদশাহ্ কে নিয়ে হৃদয়ের অনুভূতি প্রকাশ করেছেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ দৌলতপুর উপজেলা শাখার সাবেক শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক অধ্যক্ষ ছাদিকুজ্জামান খাঁন সুমন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেইসবুকে ‘প্রাণপ্রিয় নেতা এ্যাডঃ সরওয়ার জাহান বাদশাহ্ ভাইকে ঘিরে হৃদয়ে কিছু অনুভূতি’ নিয়ে একটি লেখা পোস্ট করেন অধ্যক্ষ ছাদিকুজ্জামান খাঁন সুমন ।

তার এ স্ট্যাটাসটি হুবহু তুলে ধরা হল- প্রিয় নেতা, প্রিয় ভাই আপনাকে যত দেখি ততই মুগ্ধ হই। আপনার সুনিপুণ কর্ম দক্ষতা দেখে গৌরবে হৃদয় পরিপূর্ণ হয়ে উঠে। আপনি এমন একজন মনের মানুষ যিনি বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ, দৌলতপুর উপজেলা শাখার সিনিয়র সহ-সভাপতি ও সাবেক কেন্দ্রীয় ছাত্রনেতা এবং সংসদ সদস্য হওয়া সত্যেও যার হৃদয়ের মাঝে মান অহংকার বলতে কিছু নেই। আসলে আমার এই ক্ষুদ্র জ্ঞান এ যতটুকু বুঝি একজন নেতার তো এমনটাই হওয়া উচিত। যার কাছে নির্ভয়ে, বিনাদ্বিদায় সবাই যেতে পারে।

কখনো আপনাকে দেখিনি কেউ আপনার কাছে কোন উপকার বা কোন কাজের জন্য আসলে তার সাথে খারাপ ব্যবহার করতে বা উচু গলায় কথা বলতে। বরং দেখেছি আগত সেই ব্যাক্তিকে হাসি মুখে বসতে বলতে, চা-নাস্তা গ্রহণের আমন্ত্রণ জানাতে এবং সম্ভব হলে তার কাজের তাৎক্ষনিক সমাধান করতে। প্রিয় নেতা আপনাকে কখনো দেখা যায় রাস্তায় ঘুরে বেড়ানো প্রতিবন্ধী ছেলে টাকে জড়িয়ে ধরে আদর করতে, তার আবদার মেটাতে, কখনো দেখা যায় রিকসা চালকের সাথে, অটো চালকের সাথে, রাস্তা দিয়ে হেটে মানুষের সাথে সুমধুর হাসির সহিত হাতমেলাতে, কখনো মুচির পাশে মাটিতেই কোন রকম ভাবে বসে তার জীবনের বেদনার কাহিনি শুনতে।

আবার কখনো দেখা যায় রাতের বেলা ঝড় তুফান উপেক্ষা করেই ঝড়ের কবলে পড়ে ক্ষতিগ্রস্ত লোকদের পাশে গিয়ে দাঁড়াতে। সদা সর্বদা দৌলতপুর উপজেলার মানুষ আপনাকে তাদের আপদে বিপদে, সুখে-দুঃখে পাশে পায় কারণ আপনি তো জনতার নেতা। সংসদ সদস্য নির্বাচিত হবার পরও প্রিয় নেতা এ্যাডঃ সরওয়ার জাহান বাদশাহ্ ভাইয়ের মাঝে বিন্দু পরিমাণ কোন পরিবর্তন দেখা যায়নি।

আবার আপনাকে দেখা যায় কড়া রোদের তাপের মাঝে নদীর পাড়ে খোলা আকাশের নিচে বসেই জনগনের কাজ করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর অর্পিত দায়িত্বের বহিঃপ্রকাশ ঘটাতে। প্রিয় নেতা এ্যাডঃ সরওয়ার জাহান বাদশাহ্ সংসদ সদস্য হওয়ার দেড় বছরের মধ্যেই তিনি যায়গা করে নিয়েছেন কুষ্টিয়া-১ দৌলতপুর আসনের প্রতিটি জনগনের হৃদয়ের মনিকোঠায়। প্রিয় নেতা প্রিয় ভাই আমি আপনার একজন ক্ষুদ্র কর্মী হতে পেরে গর্ববোধ করি।

আমি মনে প্রাণে বিশ্বাস করি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যে সোনার বাংলা গড়তে চেয়েছিলেন আপনার মতো সোনার ছেলেদের দিয়েই সেই সোনার বাংলা গড়া সম্ভব। আপনার মতো পরিশ্রমী, জনদরদী, সৎ, নির্লোভ, জনপ্রিয় নেতাদের দিয়েই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্ন ক্ষুদা মুক্ত, দারিদ্র্য মুক্ত, মাদক মুক্ত, সন্ত্রাস মুক্ত, জঙ্গি মুক্ত সোনার বাংলা গড়া সম্ভব। আপনি সারা দৌলতপুর বাসীর গর্ব। আপনি পশ্চিম বঙ্গের উজ্জ্বল নক্ষত্র আগামী তে আপনাকে মন্ত্রী হিসাবে দেখতে চাই।

আমাদের প্রাণের নেতা, দৌলতপুরের মাটি ও মানুষের হৃদয়ের স্পন্দন, প্রধানমন্ত্রীর শেখ হাসিনার আস্তাভাজন, দলের দুঃসময়ের রাজপথ কাঁপানো তুখোড় ছাত্রনেতা,কুষ্টিয়া-১ দৌলতপুর আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য, জননেতা এ্যাডঃ সরওয়ার জাহান বাদশাহ্ ভাইকে মন্ত্রী হিসাবে দেখতে চাই। প্রিয় ভাই আমার হৃদয়ের হৃদয়স্পন্দন থেকে আপনার জন্য সর্বদা অনেক অনেক শুভ কামনা।

আমি আমার প্রাণের স্পন্দন থেকে পরম করুণাময় সৃষ্টিকর্তার নিকট প্রার্থনা করি তিনি সর্বদা আপনাকে সুস্থ রাখুক এবং এভাবেই জনগণের সেবায় নিয়োজিত রাখুক। আপনাকে নিয়ে গর্ব হয় ভাই। শুভ কামনায়- আপনার ক্ষুদ্র কর্মী অধ্যক্ষ ছাদিকুজ্জামান খাঁন সুমন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

কুষ্টিয়ায় আরো এক পান্না মাষ্টারের সন্ধান..! লম্পট রাজুর বিরুদ্ধে একাধিক ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ প্রতিবাদ করায় ছাত্রীকে হুমকি, নিরাপত্তাহীনতা ও বিচার চেয়ে থানায় এজাহার দায়ের সোহেল রানা কুষ্টিয়া : কুষ্টিয়ায় এক লম্পটের বিরুদ্ধে ছাত্রীকে শ্লীলতাহানি ও কু-প্রস্তাবের অভিযোগ উঠেছে । ভুক্তভোগী ওই ছাত্রীকে বিভিন্ন মাধ্যমে হুমকি ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করেছে ওই লম্পট। জানা যায়, কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার গোয়ালগ্রাম মধুগাড়ী এলাকার আরজ উল্লাহ’র ছেলে রাজু আহাম্মেদ যার বর্তমান ঠিকানা কুষ্টিয়া শহরের কাটাইখানা মোড়ের একটি বেসরকারি নার্সিং ইনস্টিটিউটের কোর্স সমন্বয়কারী। অত্র ইনস্টিটিউটের ২য় বর্ষের এক ছাত্রীর সাথে পরিচয় হয় তার। পরিচয়ের পর একপর্যায়ে ওই ছাত্রীকে বিভিন্ন ভাবে কু-প্রস্তাব দেয় লম্পট রাজু। কিন্তু ওই ছাত্রী তার কু-প্রস্তাবে সাড়া না দেওয়ায় রাজু ওই ছাত্রীর ওড়না ধরে টানাটানি, শরীরে বিভিন্ন স্থানে হাত দেওয়া সহ বিভিন্ন ভাবে দীর্ঘদিন ধরে উত্যক্ত করে আসছিল রাজু। বিষয়টি কাউকে জানালে ওই ছাত্রীকে পরীক্ষায় ফেল করিয়ে দেওয়ার হুমকি দেয় ওই লম্পট। ভীত ওই ছাত্রী জানায়, লম্পট রাজু জোরপূর্বক ভাবে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এব্যাপারে ওই ছাত্রী নিরাপত্তাহীনতা ও বিচারের দাবী করে কুষ্টিয়া মডেল থানায় একটি এজাহার দায়ের করেছেন।একাধিক সূত্র জানায়, এরকম আরো কয়েকজন শিক্ষার্থীদের ভয়ভীতি দিয়ে অনৈতিক সম্পর্ক গড়ার চেষ্টা করে লম্পট রাজু। তার ফাঁদে পড়ে অনেকেই সর্বঃস্ব হারিয়েছে বলে সূত্র জানিয়েছে। ওই ছাত্রীর এজাহারের ভিত্তিতে কুষ্টিয়া মডেল থানার ওসি গোলাম মোস্তফার নির্দেশে ওসি তদন্ত অভিযোগকারী ওই ছাত্রীসহ ভুক্তভোগীদের জিজ্ঞাসাবাদ করে। পরবর্তীতে কুষ্টিয়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ গোলাম মোস্তফা বাদী ও ভুক্তভোগীদের জিজ্ঞাসাবাদ করে সত্যতা পায়। তিনি জানান, নারী নির্যাতনকারী অপরাধী যেই হোক তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অতিদ্রুত অভিযুক্তের বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এক ক্লিকে বিভাগের খবর