সোমবার, ১৭ মে ২০২১, ০৩:৫৯ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
হোগলবাড়িয়া ইউনিয়নের জনতার সাথে ইফতার করলেন চেয়ারম্যান সেলিম চৌধুরী এমন ভরা বস্তা জম্মেও পাইনি ব্যাটা ১৫ লাখ পরিবার প্রধানমন্ত্রীর ঈদ উপহার পাচ্ছে ‘নগদ’-এ নেতা আসছেন কুষ্টিয়ায় হোগলবাড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান সেলিম চৌধুরীর উদ্দ্যোগে অসহায় মানুষের মাঝে নগদ অর্থ ও ইফতার সামগ্রী বিতরণ অসহায় লোকসঙ্গীত শিল্পী কাঙ্গালিনী সুফিয়ার পাশে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি কুষ্টিয়ায় অপসাংবাদিকতার বিরুদ্ধে জেলা ইউনাইটেড অনলাইন প্রেসক্লাবের মানববন্ধন ঝিকরগাছায় কৃষিতে উৎপাদন বাড়িয়ে দেশকে এগিয়ে নিতে কৃষকের অভাবনীয় সাফল্য -উপপরিচালক মনিরামপুরে এসএম ইয়াকুব আলীর পক্ষে কম্বল বিতরণ শোক সংবাদ, শোক সংবাদ
ঘোষণা :
নিউজ আর এস এ আপনাকে স্বাগতম  

কুষ্টিয়া কালী নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করছে সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী কালু

Reporter Name / ৯০ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : সোমবার, ১৮ জানুয়ারী, ২০২১, ৪:০৯ অপরাহ্ন

কুষ্টিয়া জেলা প্রতিনিধি।।

কুষ্টিয়া জেলার কুমারখালী উপজেলা চাঁপড়া ইউনিয়ানের বাধবাজার এলাকায় পূর্ব দিকের কালী নদী থেকে অবৈধ ভাবে বালি উতলোন করছে উক্ত এলাকার সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী কালূ আলাল ও তাদের সশস্ত্র বাহিনী। ২/৩টা মামলার আসামী আশরাফুল ইসলাম কালু ও তার ঘনিষ্ঠ সহচর আলালকে সাথে নিয়ে হ্মমতার দাপট দেখিয়ে নদীর মাঝখানে ড্রেজার মেশিন বসিয়ে বেশ কয়েকদিন ধরে দিন-রাত বালি উত্তোলন করে চলেছে।
সরেজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, উক্ত এলাকার আশপাশের ব্যক্তিদের পুকুর ভরাট করছে কন্টাক্টের মাধ্যমে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে বেশ কয়েকজন ব্যক্তি প্রতিবেদককে বলেন একটি পুকুর ভরাট করতে ৪/৫ লক্ষ টাকা নিচ্ছে এই সন্ত্রাসী কালু। তাদের এই অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলনের ফলে নদীটি ক্রমান্বয়ে সংকুচিত হচ্ছে, কারণ কালী নদীতে কোন নাব্যতা নেই, নদীটি একদিকে মরা নদীতে পরিণত হয়েছে অন্যদিকে নদীর দুপ্রান্তে বাদ দিয়ে আটকানো। বৃষ্টির পানি ও আশপাশের গ্রামের ক্ষেতের পানি উক্ত নদীতে পড়ে ভরাট হয়ে থাকে।
কালু শুধু বালু খেকোই নয়, সে উক্ত এলাকার বড় মাপের সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী হিসেবে এলাকায় ব্যাপক পরিচিত। তিনি দীর্ঘদিন ধরে কালী নদীর বিভিন্ন স্থানে মেশিন বসিয়ে কন্টাক্ট এর মাধ্যমে বালু উত্তোলন করে বিক্রি করে আসছে। সে এতই ক্ষমতাধর যে, ভয়ে এলাকাবাসী তার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ কোন ধরনের প্রতিবাদ করতে সাহস পায় না।
অবৈধ বালু উত্তোলনের বিষয়ে আশরাফুল ইসলাম কালু ও আলালের সাথে কথা হলে তারা বলেন, আমরা কি জনগণের বাপের জায়গা থেকে বালু উত্তোলন করে বিক্রয় করছি। এর জন্য এত মাথাব্যথা কেন আপনাদের ? সেই সাথে প্রতিবেদককে আরো অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেছেন।
এ বিষয়ে কুমারখালী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার সাথে মুঠোফোনে কথা হলে তিনি বলেন আমরা এর সত্যতা পেলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করব।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....

কুষ্টিয়ায় আরো এক পান্না মাষ্টারের সন্ধান..! লম্পট রাজুর বিরুদ্ধে একাধিক ছাত্রীকে শ্লীলতাহানির অভিযোগ প্রতিবাদ করায় ছাত্রীকে হুমকি, নিরাপত্তাহীনতা ও বিচার চেয়ে থানায় এজাহার দায়ের সোহেল রানা কুষ্টিয়া : কুষ্টিয়ায় এক লম্পটের বিরুদ্ধে ছাত্রীকে শ্লীলতাহানি ও কু-প্রস্তাবের অভিযোগ উঠেছে । ভুক্তভোগী ওই ছাত্রীকে বিভিন্ন মাধ্যমে হুমকি ও ভয়ভীতি প্রদর্শন করেছে ওই লম্পট। জানা যায়, কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার গোয়ালগ্রাম মধুগাড়ী এলাকার আরজ উল্লাহ’র ছেলে রাজু আহাম্মেদ যার বর্তমান ঠিকানা কুষ্টিয়া শহরের কাটাইখানা মোড়ের একটি বেসরকারি নার্সিং ইনস্টিটিউটের কোর্স সমন্বয়কারী। অত্র ইনস্টিটিউটের ২য় বর্ষের এক ছাত্রীর সাথে পরিচয় হয় তার। পরিচয়ের পর একপর্যায়ে ওই ছাত্রীকে বিভিন্ন ভাবে কু-প্রস্তাব দেয় লম্পট রাজু। কিন্তু ওই ছাত্রী তার কু-প্রস্তাবে সাড়া না দেওয়ায় রাজু ওই ছাত্রীর ওড়না ধরে টানাটানি, শরীরে বিভিন্ন স্থানে হাত দেওয়া সহ বিভিন্ন ভাবে দীর্ঘদিন ধরে উত্যক্ত করে আসছিল রাজু। বিষয়টি কাউকে জানালে ওই ছাত্রীকে পরীক্ষায় ফেল করিয়ে দেওয়ার হুমকি দেয় ওই লম্পট। ভীত ওই ছাত্রী জানায়, লম্পট রাজু জোরপূর্বক ভাবে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এব্যাপারে ওই ছাত্রী নিরাপত্তাহীনতা ও বিচারের দাবী করে কুষ্টিয়া মডেল থানায় একটি এজাহার দায়ের করেছেন।একাধিক সূত্র জানায়, এরকম আরো কয়েকজন শিক্ষার্থীদের ভয়ভীতি দিয়ে অনৈতিক সম্পর্ক গড়ার চেষ্টা করে লম্পট রাজু। তার ফাঁদে পড়ে অনেকেই সর্বঃস্ব হারিয়েছে বলে সূত্র জানিয়েছে। ওই ছাত্রীর এজাহারের ভিত্তিতে কুষ্টিয়া মডেল থানার ওসি গোলাম মোস্তফার নির্দেশে ওসি তদন্ত অভিযোগকারী ওই ছাত্রীসহ ভুক্তভোগীদের জিজ্ঞাসাবাদ করে। পরবর্তীতে কুষ্টিয়া মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ গোলাম মোস্তফা বাদী ও ভুক্তভোগীদের জিজ্ঞাসাবাদ করে সত্যতা পায়। তিনি জানান, নারী নির্যাতনকারী অপরাধী যেই হোক তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অতিদ্রুত অভিযুক্তের বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এক ক্লিকে বিভাগের খবর